Indian Prime Time
True News only ....

দীর্ঘ চার বছর পর বাড়ির মেঝে খুঁড়ে উদ্ধার মৃতদেহ

- sponsored -

- sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ উত্তরপ্রদেশঃ উত্তরপ্রদেশের মুজফ্‌‌ফরনগরে এক যুবক প্রেমিকের অনিচ্ছায় প্রেমিকের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে চেয়েছিলেন। তাই ওই যুবক প্রেমিককে খুন করে নিজের ঘরে দেহ পুঁতে দিয়েছিলেন। কিন্তু সে অপরাধবোধে ভুগতে থাকায় চার বছর পর প্রেমিকের ভাইয়ের কাছে খুনের কথা স্বীকার করে।

সূত্রের খবর, ২৬ বছর বয়সী মহম্মদ হাসানের সাথে ২৭ বছর বয়সী সলমন আহমেদের বন্ধুত্ব সহ বিশেষ সম্পর্ক ছিল। তবে সলমন হাসানের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করতে চাইলে সে রাজি না হওয়ায় কারণেই হাসানকে বাড়িতে ডেকে তলোয়ার দিয়ে হত্যা করার পর বাড়ির মেঝেতে পুঁতে দেন।

- Sponsored -

- Sponsored -

পরিবারের সদস্যরা হাসানের খুন হওয়ার কথা জানত না। সেদিনের পর থেকে তার কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। সম্প্রতি সলমনের হাসানের ভাই সালিমের সাথে দেখা হলে নিজের সমস্ত অপরাধের কথা স্বীকার করে। প্রথমে সালিম এই কথা বিশ্বাস করেনি।

পরে সলমন নেটমাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করার পরই সালিম গ্রামবাসীদের নিয়ে তার বাড়িতে যান। এরপর সেখানে মাটি খুঁড়তেই মৃতদেহ পাওয়া যায়। পুলিশ গোটা বিষয়ের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে সলমনকে গ্রেফতার করে তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় মামলা রুজু করেছেন। বর্তমানে অভিযুক্ত সলমন জেল হেফাজতে রয়েছেন।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored