Indian Prime Time
True News only ....

দেশ জুড়ে পালন হচ্ছে মহাত্মা প্রয়াণ দিবস

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ নয়া দিল্লিঃ ১৯৪৮ সালের ৩০ শে জানুয়ারী দিল্লির বিড়লা হাউসে জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীকে নাথুরাম গডসে গুলি করেন। ফলে ঘটনাস্থলেই গান্ধীজি প্রাণ হারান। প্রয়াণকালে গান্ধীজির বয়স ছিল ৭৮ বছর। এরপর থেকে প্রতি বছর এই দিনটি ‘শহিদ দিবস’ হিসেবে পালিত হয়।

আজ মহাত্মা গান্ধীর ৭৩ তম প্রয়াণ দিবস দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পরম শ্রদ্ধার সাথে পালন করা হচ্ছে। আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু টুইটের মাধ্যমে জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

- Sponsored -

- Sponsored -

 Narendra Modi
          @narendramodi
Tributes to the great Bapu on his Punya Tithi. His ideals continue to motivate millions. On Martyrs’ Day we recall the heroic sacrifices of all those great women and men who devoted themselves towards India’s freedom and the well-being of every Indian.
President of India
          @rashtrapatibhvn
On behalf of a grateful nation, my humble tributes to the Father of the Nation, Mahatma Gandhi who embraced martyrdom this day. We should adhere to his ideals of peace, non-violence, simplicity, purity of means and humility. Let us resolve to follow his path of truth and love.
Vice President of India
          @VPSecretariat
Gandhi Ji was a crusader of peace, non-violence & selfless service. Both, through his words and actions, he left an indelible imprint on the sands of time. He inspired countless people worldwide to follow the path of ahimsa.

এমনকি পশ্চিমবঙ্গের গান্ধিঘাটেও শহিদ স্মরণ দিবস পালন করা হয়। যেখানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর, রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু, মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, যুব তৃণমূল সম্পাদক সম্রাট তপাদার। রাজ্যপালের সামনেই স্লোগান তোলা হয়, ‘নাথুরাম মুর্দাবাদ, নাথুরামপন্থী দূর হটো’।

এছাড়া এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশ অনুযায়ী  ‘শহিদ দিবস উপলক্ষে আজ সকাল ১০ টা ৫৯ থেকে ১১ টা পর্যন্ত ১ মিনিট ধরে দেশজুড়ে সাইরেন বাজানো হয়। তারপর ১১ টা থেকে ২ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়েছে। সাইরেন শুনতে পেলেই যে যেখানে থাকুক সব কাজ ফেলে উঠে দাঁড়িয়ে নীরবতা পালনে অংশ নেওয়ার নির্দেশ ছিল। নীরবতা পালনের পর ১১ টা ২ মিনিট থেকে ১১ টা ৩ মিনিট পর্যন্ত ফের সাইরেন বাজানো হয়েছিল”।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored