Indian Prime Time
True News only ....

একই ল্যাব থেকে মিলল দু’রকম করোনা রিপোর্ট

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ হুগলীঃ হুগলী জেলার উত্তরপাড়ার এক বেসরকারী ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে করোনা পরীক্ষার দু’ধরণের রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগ উঠল। এই ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে মহকুমা শাসকের কাছে।

সূত্রের খবরের ভিত্তিতে জানা গেছে, গত ১৫ ই মে হিন্দমোটরের বাসিন্দা ছবি দাস করোনা পরীক্ষার জন্য উত্তরপাড়ার একটি বেসরকারী ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নমুনা দেন। পরেরদিন মহিলার স্বামী বিশ্বজিত্‍ দাসের ফোনে রেজাল্ট নট ডিটেকটেড অর্থাত্‍ রিপোর্ট নেগেটিভ বলে এসএমএস আসে। অথচ পরীক্ষার তিন দিন পর গতকাল রিপোর্টের যে হার্ডকপি দেওয়া হয় দেখা যায় তাতে লেখা, ‘রেজাল্ট ডিটেকটেড’ অর্থাত্‍ পজিটিভ।

- Sponsored -

- Sponsored -

ফলে একই ডায়াগনস্টিক সেন্টার থেকে দু’ধরকম রিপোর্ট পেয়ে চিন্তিত পরিবার। তাই তারা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সঠিক রিপোর্ট কোনটা জানতে গেলে জানানো হয়, এটি কলকাতার ল্যাব থেকে সিস্টেমের গন্ডগোলের জন্য হয়েছে।

ছবির পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি শ্রীরামপুরের মহকুমা শাসককে জানানো হলে মহকুমা শাসক সম্রাট চক্রবর্তী জানান, ”একটা অভিযোগ পেয়েছি। জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরকে  সব জানানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করে ত্রুটি দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে”।

এই প্রসঙ্গে উত্তরপাড়ার প্রাক্তন পুরপ্রধান দিলীপ যাদব বলেন, ”এমন ঘটনার কথা শুনেছি। যদি একই লোকের একবার নেগেটিভ রিপোর্ট একবার পজিটিভ রিপোর্ট আসে তা হলে খুব সমস্যার ব্যাপার। যার পরীক্ষা হলো যদি তাকে নেগেটিভ বলে দেওয়া হয় তবে তিনি বাইরে বের হবেন, মেলামেশা করবেন এতে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা প্রবল। আর যদি তাকে পজিটিভ বলে দেওয়া হয় তা হলে তিনি ওষুধ খাবেন তাতেও ক্ষতির সম্ভাবনা। তাই বেসরকারী ল্যাবগুলোর আরো দায়িত্বশীল হওয়া উচিত”।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored