Indian Prime Time
True News only ....

সিল করে দেওয়া হল তৃণমূল কাউন্সিলরের রেশন দোকান

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ বর্ধমানঃ বর্ধমানের আসানসোল পুরসভার ৬৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মহম্মদ সেলিম আখতারের রেশন দোকানে ব্যাপক গরমিলের অভিযোগ পেয়ে পশ্চিম বর্ধমান জেলা প্রশাসনের খাদ্য বণ্টন দপ্তর রেশন দোকানটি সিল করে দেয়। তবে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক তর্জা শুরু হয়েছে।

অভিযোগ, এর আগেও মহম্মদ সেলিম আখতারের রেশন দোকানের বিরুদ্ধে গরমিলের অভিযোগ পেয়ে জরিমানা করা হয়।, এরপরেও ওই রেশন দোকানের মালিক নিজেকে সংশোধন না করায় প্রশাসনকে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হয়েছে। এছাড়া মহম্মদ সেলিম আখতারকেও শো-কজও করা হয়েছে।

তাতে বলা হয়েছে, প্রায় ৪০০ কুইন্টাল চাল ও গমের যে হিসাব পাওয়া যায়নি, তার উত্তর সাত দিনের মধ্যে দিতে হবে। জেলা খাদ্য দপ্তরের আধিকারিক দীপক মণ্ডল জানান, ‘‘আমরা ইন্সপেকশনে গিয়েছিলাম। কিছু গরমিল পাওয়া গিয়েছে। সাসপেন্ড করা হয়েছে। এর থেকে বেশী কিছু বলতে পারব না।’’

- Sponsored -

- Sponsored -

বিজেপির আসানসোল সাংগঠনিক জেলার সভাপতি বাপ্পা চট্টোপাধ্যায় এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘তৃণমূলের সবাই চোর। কেন্দ্রের পাঠানো চাল-গম খোদ তৃণমূলের কাউন্সিলর লোপাট করে দিচ্ছেন।’’

কিন্তু বিজেপির এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসানসোল পুরসভার ডেপুটি মেয়র ওয়াসিমুল হক বলেছেন, ‘‘বিরোধীদের কাজ হচ্ছে সমালোচনা করা। তৃণমূলে থাকলেই দুর্নীতির সাথে যুক্ত বলা হচ্ছে। আর যখনই তারা বিজেপিতে যাচ্ছেন, তখনই তারা ওয়াশিং মেশিনে সব ধুয়ে যায়।’’

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored