Indian Prime Time
True News only ....

ঐতিহ্য ফেরাতে এবার কালনার বাগদেবীর পুজোর থিম ‘পুতুল নাচ’

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ বর্ধমানঃ পশ্চিমবঙ্গের একটি প্রাচীন ঐতিহ্য পুতুল নাচ। গ্রামীণ জনপদে আবালবৃদ্ধ-বনিতার বিনোদনে বিশেষ করে শিশুদের বিনোদনে পুতুল নাচ একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। এখানে শিল্পী পুতুলকে দক্ষতার সঙ্গে চালনা করেন। পুতুলনাচের মাধ্যমে লোকজীবনের নানা দিক প্রকাশিত করা হয়। কিন্তু বর্তমানে নিত্যনতুন বিনোদনের দাপটে পুতুলনাচ হারিয়ে যেতে বসেছে। এবার এই হারিয়ে যেতে বসা শিল্পকে বর্ধমানের কালনা শহরের চারাবাগান চড়কতলা এলাকার সবুজ সমিতি সরস্বতী পুজোর থিম করেছে।

কালনার সব থেকে বড়ো উৎসব সরস্বতী পুজো। শুধু শহরেই ছোটো-বড়ো মিলিয়ে শ’খানেক পুজো হয়। পুজোর মাস দেড়েক আগে থেকে প্রস্তুতি শুরু হয়ে যায়। মণ্ডপ সাজিয়ে তুলতে স্থানীয়দের পাশাপাশি বাইরে থেকেও শিল্পীরা আসেন। তবে দুর্যোগের কারণে ক্লাবগুলি বেশীর ভাগ মণ্ডপের একাংশ ঢেকে নিজেদের ভাবনা ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা চালাচ্ছেন। চলতি বছর সবুজ সমিতির থিম ‘সুতোয় বাঁধা পুতুল হয়ে তোমার আমার গল্প বলে’।

পুতুলে সাজানো মণ্ডপে কাগজের প্রতিমা থাকবে। এছাড়া, কাঠ, ফাইবার ও কাগজের অজস্র পুতুল রয়েছে। ছোটো ছোটো পুতুলগুলিকে নানা পোশাকে সাজানো হয়েছে। মণ্ডপের ভিতরে দুই থেকে আড়াই ফুটের পুতুল রাখারও জায়গা তৈরী করা হয়েছে। মণ্ডপের ভিতরে বেশ কিছু পুতুলকে নড়াচড়া করতেও দেখা যাবে। বাইরেও বেশ কিছু পুতুল সাজানো থাকবে। অসীম মণ্ডল-সহ এক ঝাঁক শিল্পী গোটা এই মণ্ডপটি ফুটিয়ে তোলার কাজ করছেন।

- Sponsored -

- Sponsored -

অসীমবাবু জানান, “সচরাচর রাজস্থানের পুতুলের কাজ দেখা যায়। তবে বাংলার পুতুলেরও একটা ঐতিহ্য রয়েছে। এক সময় পুতুলনাচ খুব জনপ্রিয় ছিল। ক্রমশ এই শিল্প হারিয়ে যাচ্ছে। নতুন প্রজন্মের অনেকেই পুতুল নাচ কেমন জানেন না। মণ্ডপে পুতুলগুলির মুখের আকার মানুষের মতো হবে। যারা জীবনের নানা গল্প বলবে। এই মণ্ডপটি দেখতে প্রচুর মানুষ আসবে।”

আর এক শিল্পী গৌতম সাহা বলেন, “ছোটোরা মণ্ডপে এসে সব থেকে বেশী বিনোদন পাবে।” পাশাপাশি এলাকার শিল্পী তথা হস্তশিল্পে পুরস্কারপ্রাপ্ত এই শিল্পী সূর্যশেখর সিংহ রায় প্রতিমা তৈরী করছেন। যেখানে একটি উই খাওয়া বই দেখানো হয়েছে। সেখানে সমাজে নানা স্তরের মানুষ একটাই প্রশ্ন করছেন, ‘মা আমাদের ভবিষ্যৎ কী’? অর্থাৎ প্রতিমায় বার্তা দেওয়া হয়েছে, যাতে সমাজের সকল স্তরের মানুষ মায়ের আশীর্বাদ নিয়ে এগিয়ে যেতে পারেন।”

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored