Indian Prime Time
True News only ....

কারখানা থেকে উদ্ধার রক্তাক্ত যুবকের দেহ

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

অনুপ চট্টোপাধ্যায়ঃ কলকাতাঃ বৃহস্পতিবার সকালবেলা আমহার্স্ট স্ট্রিট থানা এলাকার কেশবচন্দ্র সেন স্ট্রিটে একটি গ্রিলের কারখানার ভিতরে এক যুবককে লোহার রড দিয়ে আঘাত করে খুনের ঘটনা ঘটেছে। মৃতের নাম মহম্মদ আফতাব আনসারি। এই ঘটনায় কারখানা চত্বরে শোরগোল শুরু হয়ে যায়।

পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন। আফতাবের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে লালবাজারের গোয়েন্দাদের অনুমান, টাকা-পয়সা জনিত বিবাদেই খুনের ঘটনাটি ঘটে থাকতে পারে। তবে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করলে গোটা বিষয়টি স্পষ্ট হবে। কিন্তু এই ঘটনার পর থেকে কারখানার এক জন কর্মী মহম্মদ সাব্বির পলাতক।

পুলিশ তদন্তে নেমে জানতে পারেন, কারখানায় আফতাব ও সাব্বির ছাড়াও আফতাবের এক নাবালক শ্যালক থাকত। সে প্রথম জামাইবাবুর দেহ দেখে। তাকে জেরা করে জানা গেছে, আফতাবের টাকাপয়সা নিয়ে সাব্বিরের সঙ্গে গোলমাল চলছিল। এই ঘটনার আগের দিন কারখানার মালিক আফতাব এবং তার শ্যালককে ১১ হাজার টাকা দিয়েছিলেন।

- Sponsored -

- Sponsored -

যা অনলাইনের মাধ্যমে ঝাড়খণ্ডের বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। এদিকে সাব্বির আফতাবের চেয়ে কম টাকা পাওয়া নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিল। তাই ওই ১১ হাজার টাকার জন্য খুন করা হয়ে থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। এছাড় ঘটনাটির এক দিন আগে আফতাব মালিকের পক্ষ নিয়ে সাব্বিরের বিরুদ্ধে কথা বলেছিলেন। ফলে সেই কারণে খুন করা হয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

অন্যদিকে, পুলিশের একটি সূত্র জানাচ্ছে, আফতাব, সাব্বির ও আফতাবের শ্যালক একই ঘরে থাকতেন। সেক্ষেত্রে আফতাবকে লোহার রড দিয়ে আঘাত করা হলে ওই কিশোর কিছু টের পেল না কেন, তাও ভালোভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored