Indian Prime Time
True News only ....

বন্ধুরূপী দুষ্কৃতীদের হাতে গুরুতর জখম ১ যুবক

- Sponsored -

- Sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

- Sponsored -

- Sponsored -

পিঙ্কি পালঃ দক্ষিণ চব্বিশ পরগণাঃ গতকাল রাতের অন্ধকারে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তুষাররঞ্জন কয়াল নামের এক যুবককে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল তার দুই বন্ধুর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তী থানার ৫ নম্বর ভরতগড় গ্রামে ঘটে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার বাসন্তীর মসজিদবাটি এলাকার বাসিন্দা তুষার একটি ব্যাঙ্কের অস্থায়ী কর্মী। বছর খানেক আগে তার সঙ্গে হাড়ভাঙি এলাকার বাসিন্দা হাফিজুল মোল্লা নামের এক যুবকের পরিচয় হয়েছিল।

কিন্তু গতকাল সন্ধ্যাবেলা তুষার ব্যাঙ্কের কাজ সেরে বাড়িতে ফেরার সময় বাসন্তী বাজারের কাছে তার হাফিজুলের সঙ্গে দেখা হয়। সেই সময় হাফিজুল তুষারকে জানায় তার বাইক খারাপ হয়ে যাওয়ায় ভরতগড় এলাকার এক বন্ধুর বাড়িতে রেখে এসেছে। তাই সেখানে তাকে বাইকে করে পৌঁছে দেওয়ার অনুরোধ করে। তুষার হাফিজুলের কথা মতো তাকে বাইকে করে ভরতগড়ে রওনা দেন। সেখানে হাফিজুল বাইক থেকে নেমে তার আরেক বন্ধুকে ডেকে তার হাড়ভাঙি গ্রামের বাড়িতে পৌঁছে দিতে বললে তুষার সেই অনুযায়ী দু’জনকে বাইকে তুলে ভরতগড় থেকে হাড়ভাঙির দিকে রওনা দেন।

- Sponsored -

- Sponsored -

তারপরই ভরতগড় ৫ নম্বর গ্রামের কাছে শিবদাসী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন ফাঁকা একটি মাঠের ধারে রাস্তায় এসে বাইকের মধ্যেই হাফিজুল ও তার বন্ধু দুজনে তুষারের গলায় দড়ি পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করার চেষ্টা করতে থাকে। তবে চলন্ত বাইক থেকে কোনোক্রমে তুষার নেমে পড়লে সেখানে তাকে তারা বেধড়ক মারধর করে। আর তুষারের মাথায় থাকা হেলমেট খুলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে খুন করার চেষ্টা করে। এমন সময় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে্র যন্ত্রণায় চিত্‍কার শুরু করলে স্থানীয় বাসিন্দারা তা শুনে ছুটে আসেন। সেই সময় ওই দু’জন তার ল্যাপটপ, গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র সহ প্রায় লক্ষাধিক টাকা ছিনিয়ে নিয়ে সেখান থেকে চম্পট দেয়।

তৎক্ষণাৎ স্থানীয় বাসিন্দারাই ওই যুবককে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বাসন্তী ব্লক গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যান। তবে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাতেই তাকে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন এখনো তার অবস্থা সংকটজনক।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে বাসন্তী থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী উপস্থিত হয়। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমে ঘটনার মূল অভিযুক্ত হাফিজুলকে আটক করা হয়। এবং অপর আরেক অপরাধীর তল্লাশি চালানো হচ্ছে। তবে শুধু কি ছিনতাই না কোনো ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরে এই খুনের চেষ্টা করা হয়েছে তা জানতে ধৃত হাফিজুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা করছে পুলিশ।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored