Indian Prime Time
True News only ....

ধর্মের স্বীকৃতিতে আন্দোলনের পথে হাঁটতে চলেছে আদিবাসীরা

- sponsored -

- sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ বর্ধমানঃ ভারতের পাঁচ রাজ্যে আদিবাসী ‘সারনা ধর্ম কোড’ চালুর দাবীতে ‘আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান’ নামের সংগঠনের সদস্যরা আন্দোলনে নামেন। গতকাল তারা হাওড়া-বর্ধমান কর্ড শাখার জৌগ্রাম স্টেশনে রেলপথ অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে।

এই সংগঠনের সদস্যরা গতকাল দুপুর দেড়টা থেকে রেলপথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। পূর্ব বর্ধমান জেলার সভাপতি লক্ষ্মীনারায়ণ মু্র্মু রেলপথ অবরোধ কর্মসূচির নেতৃত্ব দেন। তবে ওই সময়ে আপ ওথবা ডাউন লাইনে কোনো লোকাল বা দূরপাল্লার ট্রেন না আসায় যাত্রীদের দুর্ভোগের মধ্যে পড়তে হয়নি।

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

আদিবাসী নেতৃত্বের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকার তাদের দাবী না মানলে তারা অনির্দিষ্ট কালের জন্য রেল ও সড়কপথ অবরুদ্ধ করবে। এছাড়া আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযানের জেলা সভাপতি লক্ষ্মীনারায়ণ মুর্মু বলেছেন, ”আদিবাসীরা হিন্দু, মুসলিম কিংবা খ্রিষ্টান নয়। আদিবাসীদের ধর্ম হল সারনা ধর্ম। আদিবাসীরা প্রকৃতির পূজারী। ২০২১ সালের জনগণনায় সারনা ধর্মকে পৃথক কোড কলাম হিসাবে জারি করার দাবীতে আমরা আন্দোলনে নেমেছি। ঝাড়খণ্ডে হিন্দি ভাষার সঙ্গে সাঁওতালি ভাষাকে রাজভাষা করার স্বীকৃতির দাবী জানাচ্ছি এবং অসম ও আন্দামানে আদিবাসীদের এসটি সূচিতে অন্তর্ভুক্ত করার দাবী জানাচ্ছি আমরা”।

এছাড়া আন্দোলনকারীরা দাবী জানিয়েছেন যে, “সিধু কানুর বংশধর রামেশ্বর মুর্মুকে হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সিবিআই তদন্ত করে ন্যায় বিচার হোক। একই সঙ্গে সিধু মুর্মু এবং বিরসা মুণ্ডার পরিবার ও বংশধরদের জন্য সরকারকে ফিক্সড ডিপোজিট করার জন্য দাবী তোলেন”।

অবরোধ চলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে রেল পুলিশ আর জামালপুর থানার পুলিশ এসে আন্দোলনকারীদের সরিয়ে দেয়। তবে তাদের দাবী কেন্দ্রীয় সরকার কতটা গ্রহণ করবে এখন সেটা শুধু অপেক্ষার।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored