Indian Prime Time
True News only ....

‘বিজেপি ও সিপিএম কুৎসা প্রচার করে মিথ্যাচার করছিল মানুষ তার উচিত জবাব দিয়েছে,’ জানান বিজয়ী প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়

- Sponsored -

- Sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

- Sponsored -

- Sponsored -

রায়া দাসঃ কলকাতাঃ ভোট পড়েছে ৪০ শতাংশের সামান্য বেশী। জয়ের ব্যবধান প্রায় কুড়ি হাজার। অর্থাৎ আসানসোলের বিধায়ক পদ ও বিজেপি ছেড়ে আসা বালিগঞ্জের তৃণমূল প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয় সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের বালিগঞ্জ থেকে নতুন বিধায়ক হয়ে গেলেন।

ভোটে জয়ী বাবুল সুপ্রিয় বলেন, ‘‘এই জয় দিদিকে উৎসর্গ করছি। বিজেপি এবং সিপিএম যেভাবে কুৎসা ও নোংরা মিশ্রিত প্রচার করে একটা মিথ্যাচারের আবহ তৈরী করতে চেয়েছিল মানুষ তার উচিত জবাব দিয়েছে। মা-মাটি-মানুষকে প্রণাম জানাই।

দিদি এবং অভিষেক’ভাই সব দিক থেকে সমস্ত রকম সাহায্য করেছেন। নিম্নমানের রাজনীতির বিরুদ্ধে আজকের মানুষের রায় দেখে আশা করা যায় যে বিরোধীরা শিক্ষা নেবে।’’ কিন্তু তিনি বালিগঞ্জ থেকে জয়ী হলেও দু’টি ওয়ার্ডে হেরে গিয়েছেন। আর এই বিষয়টি নিয়ে বাবুল সুপ্রিয় সহ দল পর্যালোচনা করবে।

- Sponsored -

- Sponsored -

অন্যদিকে আসানসোলে তৃণমূল প্রার্থী শত্রুঘ্ন সিনহা জয়ী হওয়ার প্রসঙ্গে জানিয়েছেন যে, ‘‘আসানসোলের মানুষ প্রমাণ করে দিলেন বাবুল সুপ্রিয় ওখানে কাজ করেছিল। এবারও ওরা সেই বাবুল সুপ্রিয়কেই জিতিয়েছেন। নিজের ক্ষমতায় ওখানে জিতেছিলাম। একে ভুল প্রমাণ করতে বিজেপির কুঁয়োর ব্যাঙগুলো ও বাঙালী কাঁকড়া সর্বশক্তি নিয়ে ঝাঁপিয়েছিল। 

তবে মানুষ লক্ষাধিক ভোটে শত্রুঘ্ন’জীকে জিতিয়েছেন। আসানসোলের মানুষের অভিমানটা খুব সঠিক। তারা বলতেন, দলের সাথে মতের মিল না হওয়ায় আপনি দল ছেড়েছেন কিন্তু আপনি এমপি পদটা ছাড়লেন কেন? আমারও খারাপ লেগেছিল। সেই জন্য আমি মনে করি এটা একটা পোয়েটিক জাস্টিস হয়েছে।

শত্রুঘ্ন’জীর সাথে প্রায়ই কথা হয়। জমাটি মানুষ। শিরদাঁড়া সোজা মানুষেরাই বিজেপির বিরুদ্ধে সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারেন। উনি বার বার বলেন, তুমি হাতের তালুর মতো আসানসোলকে চেনো। আগামী দিনে আমরা দু’জনে মিলে দিদির নেতৃত্বে আসানসোলের সব কাজ করব। তাই শত্রুঘ্ন’জীর সাথে মিলিত ভাবে লোকসভা এবং বিধানসভায় অত্যন্ত ভাল কাজ করব।’’

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored