Indian Prime Time
True News only ....

চাকরী পাবার আশায় টাকা দিয়ে প্রতারিত একদল যুবক-যুবতী

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

অনুপ জয়সওয়ালঃ উত্তর দিনাজপুরঃ উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে সরকারী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ওয়ার্ড বয় এবং ওয়ার্ড গার্লের চাকরী দেওয়া হবে এই প্রতিশ্রুতিতে মোটা অঙ্কের অর্থ নেওয়ার অভিযোগ তুললো একদল যুবক-যুবতী। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ চত্বর এই অভিযোগে উত্তাল হয়ে ওঠে।

প্রতারিত যুবক-যুবতীদের অভিযোগ, “করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময় তাদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ নেওয়া হয়। আর এর পরিবর্তে ওয়ার্ড বয় ও ওয়ার্ড গার্লের কাজ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। এরপর হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে বেশ কয়েকজনকে ওয়ার্ড বয় বা ওয়ার্ড গার্লের কাজ না দিয়ে সাফাই কর্মী হিসেবে কাজ দেওয়া হয়। তারপর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতেই তাদের ছাটাই করে দেওয়া হয়”।

- Sponsored -

- Sponsored -

স্থায়ী সরকারী চাকরীর কথা বলা হলেও, কেউ কাজ করেছেন ২ মাস, কেউ মাত্র ১৫ দিন। এদের মধ্যে দুই-একজন টাকা দিলেও কাজ পাননি। কেউ আবার পারিশ্রমিক পেয়েছেন ৫ হাজার টাকা আবার কেউ পারিশ্রমিক পেয়েছেন ১ হাজার টাকা। দিনরাত করোনা ওয়ার্ডে কাজ করানো হলেও করোনার টীকা দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ তোলে ওই অভিযোগকারীরা।

কোনোরকম প্রশিক্ষণহীন এই যুবক-যুবতীদের দাবী, “আমাদেরকে দীপঙ্কর বর্মন এবং শাহজাহান আলি নামের দালালরা কাজ দেওয়ার নাম করে টাকা নিয়েছে”। প্রতারিত হয়ে সাধিকা বিশ্বাস, ইরসাদ আলি ও বিপুল দাস সর্মারা বলেছেন যে, “রায়গঞ্জ হাসপাতালে ওয়ার্ডে কাজের জন্য কেউ কেউ ৫০ হাজার তো আবার কেউ কেউ ৭৫ হাজার টাকা করে দিয়েছি। কয়েকদিন পিপিই কিট পড়ে করোনা ওয়ার্ডে কাজ করেছি। এখনো বেতন পাইনি। এখন করোনা ওয়ার্ড বন্ধ থাকায় কাজ আর নেই”।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored