Indian Prime Time
True News only ....

বিধ্বংসী আগুনে ভস্মীভূত বাড়ি সহ গোটা পরিবার

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

অনুপ জয়সওয়ালঃ উত্তর দিনাজপুরঃ গতকাল রাতে উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদের মালডুমা গ্রামে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে ছাই হয়ে গেলো একটি বাড়ি ও বাড়ির ভেতরে থাকা সমগ্র পরিবার। এই মর্মান্তিক ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে এলাকায় শোকের ছায়া নেমেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাড়ির মালিক ৪০ বছর বয়সী রামচন্দ্র ভৌমিক। পেশায় ভ্যান চালক ছিলেন। রামচন্দ্র তার ৩২ বছরের স্ত্রী শঙ্করী সহ চার বছরের কন্যা সরস্বতী ভৌমিক, সাত বছরের কন্যা পরনা ভৌমিক, ও বারো বছরের কন্যা রানী ভৌমিককে নিয়ে থাকতেন। গতকাল রাতে রামচন্দ্র পরিবারকে নিয়ে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন। কিন্তু সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পরে রাতে সবাই ঘুমিয়ে পড়লে রামচন্দ্র বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেন এবং নিজেও আত্মঘাতী হন। সকালে এলাকাবাসীরা দেখেন রামচন্দ্রের বাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। তবে বারো বছরের মেয়েটি তখনও বেঁচে থাকলেও শরীরের বেশীরভাগ অংশ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এরপর আশঙ্কাজনক অবস্থায় বারো বছরের মেয়েটিকে রায়গঞ্জ গভর্মেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেই মৃত্যু হয়।

- Sponsored -

- Sponsored -

ঘটনাটির খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয়। এছাড়া ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞরা ঘটনাস্থলে এসে নমুনা সংগ্রহ করছেন। যদিও আগুন লাগার কারণ এখনো জানা যায়নি। পুলিশ ঘটনাটির পূর্ণাঙ্গ তদন্ত শুরু করেছে। তাছাড়া পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রামচন্দ্র  পরিবারের অর্থাভাবের জন্য একটি বেসরকারী অর্থলগ্নি সংস্থার থেকে টাকা ধার নিয়েছিলেন। তার উপর একদিকে আংশিক লকডাউন যার জেরে কোনো কাজকর্ম নেই।

তাই প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, রামচন্দ্র ঋণের বোঝায় জর্জরিত হয়ে সংসারের অভাব ও আর্থিক অনটন সহ্য করতে না পেরে সপরিবারে আত্মঘাতী হয়েছেন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored