Indian Prime Time
True News only ....

প্রতিশোধ স্পৃহায় জর্জরিত হয়ে খুন করতেও পিছপা হলোনা গৃহবধূ

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ মুর্শিদাবাদঃ বিয়ের পরও স্বামীর সঙ্গে অন্য মহিলার সম্পর্ক কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। কিন্তু তাই বলে প্রতিশোধের আগুনে মত্ত হয়ে স্বামী ও পুত্র সন্তানকে খুন করে নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করার ঘটনাটি অত্যন্ত বিরল এবং বিস্ময়কর ঘটনা। মুর্শিদাবাদের রঘুনাথগঞ্জ এক নম্বর ব্লকের রানিনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের মালডোবায় এই চাঞ্চল্যর ঘটনাটি ঘটেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পাঁচ বছর আগে এলাকার বাসিন্দা আশাদুল শেখের সাথে বুলি খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর ২ বছর ১০ মাস বয়সী একটি পুত্রসন্তানও হয়েছিল। তবে সম্প্রতি আশাদুলের নতুনগঞ্জের বাসিন্দা এক মহিলার সাথে আলাপ হওয়ায় প্রথমে ফোনে কথাবার্তা হতে হতে ধীরে ধীরে ঘনিষ্ঠতা ক্রমশ বাড়তে থাকে। ফলে দাম্পত্য জীবনে প্রবল অশান্তি শুরু হয়।

প্রতিদিন ভোরবেলায় বুলি ঘুম থেকে ওঠে। কিন্তু আজ ঘুম থেকে না ওঠায় শাশুড়ি ডাকতে গেলে ভেতর থেকে কারোর আওয়াজ না পেয়ে বাধ্য হয়ে দরজা ধাক্কা দেন। তাতেও দরজা না খোলায় অবশেষে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে দেখেন ছেলে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। নাতিরও কোনোরকম সাড়াশব্দ নেই। বুলির সারা শরীরে ইলেকট্রিক তার পেঁচানো। এরপর শাশুড়ির চিত্‍কার চেঁচামেচিতে এলাকার বাসিন্দারা ছুটে আসেন।

- Sponsored -

- Sponsored -

পুলিশ এই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে গৃহবধূকে প্রথমে জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে অবস্থার অবনতি হওয়ায় আশঙ্কাজনক হওয়ায় মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

পুলিশের প্রাথমিকভাবে অনুমান, প্রথমে স্বামীকে বিষ খাইয়ে অজ্ঞান করে ভারী কিছু দিয়ে মাথায় আঘাত করে। আর সন্তানকে শ্বাসরোধ করে খুন করে নিজে ইলেকট্রিক তার পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। যদিও পুলিশের তরফ থেকে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored