Indian Prime Time
True News only ....

বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে ডিভিসির উপর ক্ষোভ উগড়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

- Sponsored -

- Sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

- Sponsored -

- Sponsored -

চয়ন রায়ঃ কলকাতাঃ বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বৈঠকের মাধ্যমে জানালেন যে, “রাতের অন্ধকারে জল ছেড়ে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে। এটা অন্যায়, এটা পাপ। ডিভিসি যেভাবে জল ছেড়েছে সেটা বড়ো অপরাধ। মেন মেড ক্রাইম। ডিভিসি আমাদের কতবার ডোবাবে? ডিভিসি ড্রেজিং করবে না কেন? বাঁধ সংস্কার করছে না কেন?”

“পুজোর সময় মানুষ উত্‍সব করবে না প্রাণ বাঁচাবে? বছরে চার বার বন্যা হলে আমরা কী করব? আমরা এবার ডিভিসির কাছে ক্ষতিপূরণ চাইব।
আগে কখনো এতো জল ডিভিসি ছাড়েনি। একেবারে জল ছেড়ে ক্ষতিগ্রস্ত করা হয়েছে”।

“আমতা, ঘাটাল, ডেবরা, উদনারায়ণপুর সহ পূর্ব বর্ধমান ও পশ্চিম বর্ধমানের একাধিক ব্লক জলের তলায়। আমি ঝাড়খণ্ড সরকারকে বলব বিষয়টি দেখতে। তারাও বাঁধগুলো সংস্কার করুক। আমি আবার প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখব। আমার মুখ্য সচিবকে কৃষি সচিব এবং ক্যাবিনেট সচিবকে চিঠি লিখতে বলব”।

“ইতিমধ্যে কয়েকলক্ষ মানুষকে নিরাপদে সরানো হয়েছে। ১০ লক্ষ কিউসেকের বেশি জল ডিভিসি ছেড়েছে। গত দু’বছর একাধিকবার ঘূর্ণিঝড় ও বন্যা হয়েছে। আমরা সামলেছি। কেন্দ্র ক্ষতিপূরণ দেয়নি”।

- Sponsored -

- Sponsored -

“আমরা কতগুলো পুকুর কেটেছি, খাল সংস্কার করছি। যাতে করে জল ধরে রাখা যায়। কিন্তু প্রতিবার নদীর জলে আমাদের ভাসিয়ে দিচ্ছে”।

অন্যদিকে রাজ্যের মুখ্যসচিব জানিয়েছেন, “বন্যায় রাজ্যের ২২ লক্ষের বেশী মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। দামোদর, দ্বারকেশ্বর ও রূপনারায়ণের জল বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে।

আসানসোলেরও বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। বানভাসী পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে সক্রিয় করা হয়েছে”।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored