Indian Prime Time
True News only ....

এক ঝলকে দেখে নিন মাধ্যমিকের সেরা দশের তালিকা

- sponsored -

- sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

চয়ন রায়ঃ কলকাতাঃ আজ আশি দিনের মাথায় ২০২৪ এর মাধ্যমিক ফলাফল প্রকাশিত হলো। লোকসভা নির্বাচনের কারণে ২ রা ফেব্রুয়ারী থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হয়েছিল। আর ১২ ই ফেব্রুয়ারী পরীক্ষা শেষ হয়েছিল। চলতি বছর ৯ লক্ষ ২৩ হাজার ৬৩৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৯ লক্ষ ১০ হাজার ৫৯৮ জন পরীক্ষা দিয়েছে। এর মধ্যে ৪ লক্ষ ৩ হাজার ৯০০ জন ছাত্র ও ৫ লক্ষ ৮ হাজার ৬৯৮ জন ছাত্রী ছিল।

চলতি বছর ৭ লক্ষ ৬৫ হাজার ২৫২ জন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। পাশের হার বৃদ্ধি পেয়ে ৮৬.৩১ শতাংশ হয়েছে। গত বছর এই হার ৮৬.১৫ শতাংশ ছিল। প্রথম দশে ৫৭ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।

প্রথম হয়েছে কোচবিহারের রামভোলা হাইস্কুলের ছাত্র চন্দ্রচূড় সেন। প্রাপ্ত নম্বর- ৬৯৩ (৯৯ শতাংশ)।

দ্বিতীয় হয়েছে পুরুলিয়া জেলা স্কুলের সাম্যপ্রিয় গুরু। প্রাপ্ত নম্বর- ৬৯২ ( ৯৮.৯৬ শতাংশ)।

তৃতীয় হয়েছে বীরভূমের নিউ ইন্টিগ্রেটেড গভর্নমেন্ট হাইস্কুলের ছাত্রী পুষ্পিতা বাঁশুরি। দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট হাইস্কুলের ছাত্র উদয়ন প্রসাদ এবং দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ বিদ্যালয়ের ছাত্র নৈর্ঋতরঞ্জন পাল। প্রাপ্ত নম্বর ৬৯১ (৯৮.৭১ শতাংশ)।

চতুর্থ হয়েছে হুগলীর কামারপুকুরের রামকৃষ্ণ মিশন মাল্টিপারপস স্কুলের ছাত্র তপোজ্যোতি মণ্ডল। প্রাপ্ত নম্বর (৯৮. ৫৭ শতাংশ)।

পঞ্চম হয়েছে পূর্ব বর্ধমানের পারুলডাঙ্গা নসরতপুর হাইস্কুলের ছাত্র অর্ঘ্যদীপ বসাক। প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৯ (৯৮.৪৩ শতাংশ)।

- Sponsored -

- Sponsored -

ষষ্ঠ হয়েছে মালদার মোজামপুর হাইস্কুলের ছাত্র মহম্মদ শাহাবুদ্দিন আলি, পশ্চিম মেদিনীপুরের মেদিনীপুর কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্র কৌস্তভ সাহু, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ বিদ্যালয়ের ছাত্রী অলিভ গায়েন ও দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট হাইস্কুলের ছাত্র কৃশানু সাহা। প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৮ (৯৮.২৯ শতাংশ)।

সপ্তম স্থানে রয়েছে সাত জন পরীক্ষার্থী বীরভূমের সরোজিনী দেবী সরস্বতী শিশু মন্দিরের ছাত্র আরত্রীক সৌ, বালুরঘাট হাইস্কুলের সাত্বত দে, বালুরঘাট গার্লস হাইস্কুলের আবৃত্তি ঘটক এবং অর্পিতা ঘোষ, পূর্ব মেদিনীপুরের জ্ঞানদীপ বিদ্যাপীঠ হাইস্কুলের ছাত্র সুপম কুমার রায়, বিবেকানন্দ আশ্রম শিক্ষায়তনের ছাত্র কৌস্তভ মাল ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যালয়ের ছাত্র আলেখ্য মাইতি। প্রাপ্ত নম্বর- ৬৮৭ (৯৮.১৭ শতাংশ)।

অষ্টম স্থানে রয়েছে নদীয়ার কৃষ্ণনগর কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্র ঋদ্ধি মল্লিক, পূর্ব বর্ধমানের বর্ধমান বিদ্যার্থী ভবন গার্লস হাইস্কুলের ছাত্রী ইন্দ্রাণী চক্রবর্তী, বর্ধমান মিউনিসিপ্যাল হাইস্কুলের ছাত্র দেবজ্যোতি ভট্টাচার্য এবং পশ্চিম মেদিনীপুরের মেদিনীপুর মিশন গার্লস স্কুলের ছাত্রী তনুকা পাল। প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৬ (৯৮ শতাংশ)।

নবম স্থানাধিকার পেয়েছে নদীয়ার চাকদহ রামলাল অ্যাকাডেমীর ছাত্র জিষ্ণু দাস, শ্যামপুর হাইস্কুলের ছাত্র অরণ্যদেব বর্মন, পূর্ব মেদিনীপুরের রামকৃষ্ণ শিক্ষামন্দির হাইস্কুলের সায়ক শাসমল, সাগর জানা, বিবেকানন্দ মিশন আশ্রম শিক্ষায়তনের ছাত্র সাগ্নিক ঘটক, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশনের ছাত্র ঋতব্রত নাথ, ঋত্বিক দত্ত ও সারদা বিদ্যাপীঠ হাইস্কুলের ছাত্র সায়নদীপ মান্না। প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৫ (৯৭.৮৬ শতাংশ)।

দশম স্থানাধিকার পেয়েছে বাকুঁড়ার বাঁকুড়া জেলা স্কুলের ছাত্র শৌভিক দত্ত, মালদার মোজামপুর হাইস্কুলের ছাত্র বিশাল মণ্ডল, হুগলীর ইএলআইটি কো-এডুকেশন স্কুলের ছাত্র নীলাঙ্কন মণ্ডল, পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়া কাশীরামদাস ইনস্টিটিউটের ছাত্র অনীশ কোনার, পূর্ব বর্ধমানের বর্ধমান বিদ্যার্থী ভবন গার্লস হাইস্কুলের ছাত্রী সম্পূর্ণা নাথ, পূর্ব বর্ধমানের পারুলডাঙ্গা নসরতপুর হাইস্কুলের ছাত্র অর্ণব বিশ্বাস এবং উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ গার্লস হাইস্কুলের ছাত্রী ভূমি সরকার।

বাঁকুড়ার তালডাংরা ফুলমতি হাইস্কুলের ছাত্রী সৌমিক খান, গড় রায়পুর হাইস্কুলের ছাত্র সৌমদীপ মণ্ডল। পশ্চিম মেদিনীপুরের মেদিনীপুর শ্রীরামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যাভবনের ছাত্র অগ্নিভ পাত্র, পূর্ব মেদিনীপুরের কন্টাই মডেল ইনস্টিটিউশনের ছাত্র সম্পাদ পারিয়া, ঋতম দাস, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশনের শুভ্রকান্তি জানা, সারদা বিদ্যাপীঠ হাই স্কুলের ইশান বিশ্বাস। প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৪ (৯৭.৭১ শতাংশ)।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored