Indian Prime Time
True News only ....

আবাস তালিকায় তৃণমূল নেতার স্ত্রীর দু’বার নাম থাকায় অভিযোগ তুলেছে বিজেপি

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ নদীয়াঃ নদীয়ার কৃষ্ণনগরের দুই নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ সিদ্ধার্থ ঘোষের স্ত্রী অপর্ণা ঘোষের নামে আবাস তালিকায় দুই বার নাম রয়েছে বলে বিজেপি অভিযোগ করেছে।

ওই পঞ্চায়েতের বিজেপি সদস্য অশোক ঘোষের অভিযোগ, ‘‘অর্পণা ঘোষের নাম আবাস তালিকায় দুই বার এসেছে। ওর বাবার ভালো নাম দর্শন ঘোষ, ডাক নাম গ্যাঁড়া ঘোষ। আবাস তালিকায় দুটো নামই রয়েছে। অর্পণার বাপের বাড়ি আমার এলাকা চৌগাছাতেই। আর সিদ্ধার্থের বাড়ি হাঁসাডাঙাতে‌। দুর্নীতির এর থেকে বড়ো প্রমাণ আর কি হতে পারে!’’

এদিকে সিদ্ধার্থবাবু যদিও জানান, ‘‘এসবের কিছু জানা নেই। তালিকা তো আমি তৈরী করিনি। যারা তালিকা তৈরী করেছেন, সেই আধিকারিকদের এই দায়। আমি আজ অবধি কোথাও আবেদন করিনি। কিন্তু আমার নাম এল কেন? এ তো ষড়যন্ত্র। আর এলাকায় তিন জন অপর্ণা ঘোষ রয়েছে।’’

- Sponsored -

- Sponsored -

/

কৃষ্ণনগর দুই নম্বর ব্লকের তৃণমূল সভাপতি সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‘সিদ্ধার্থ এই খবর শোনার পরেই স্ত্রীর নাম তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার জন্য দু’দফায় আবেদন জানিয়েছেন। এরপরেও অর্পণার নাম তালিকায় রেখে পঞ্চায়েত ভোটের আগে এক শ্রেণীর লোকজন তৃণমূলকে কালিমালিপ্ত করতে চাইছেন।’’

অপর্ণা দেবী অবশ্য দাবী করেন, ‘‘বাবার নাম একটাই, কোনো ডাকনাম নেই। আর আমাদের পাকা বাড়ি ছিল না। এর নিরিখে আমাদের ঘর এসেছিল। পরে তালিকা থেকে নাম কাটানোর জন্য পাল্টা আবেদন হয়েছে। আমি জানিও না যে আমার নামে দু’টি ঘর এসেছে।’’

এই বিতর্কের কথা শুনে কৃষ্ণনগর দুই নম্বর ব্লকের বিডিও অরবিন্দ বিশ্বাস জানিয়েছেন, ‘‘সমীক্ষার কাজ এই জন্যই করা হচ্ছে যাতে কোনো অযোগ্য ব্যক্তির নাম না থাকে। ভুল থাকলে নিঃসন্দেহে তা সংশোধন করে দেওয়া হবে।’’ 

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored