Indian Prime Time
True News only ....

মারাদোনাকে সম্মান প্রদর্শন রূপে ৫৪০০০ টাকা জরিমানা দিতে হলো মেসিকে

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

ব্যুরো নিউজঃ সম্প্রতি ৬০ বছর বয়সেই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে বিদায় নিয়েছেন ফুটবলের ঈশ্বর ডিয়েগো আরম্যান্ডো মারাদোনা। তাঁর শোকে এখনও কাতর এশিয়া থেকে ইউরোপ, আফ্রিকা থেকে অস্ট্রেলিয়া। এখন দক্ষিণ গোলার্ধের জাদুকর মারাদোনা স্মৃতির খাতায়। তাঁর জন্য চোখের জল পড়েনি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কঠিন। এখন বিশ্বের যেখানেই ফুটবল ম্যাচ হয়েছে, সেখানেই আগে এক মিনিট নীরবতা পালন হয়েছে ফুটবলের সেরা সম্রাটের জন্য। তবে স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের একটি ঘটনার জন্য তাদের যথেষ্ট সমালোচনার মুখে পড়তে হয়।

গত লা লিগার ম্যাচে ওসাসুনার বিরুদ্ধে গোলটা করেই সদ্য প্রয়াত দিয়েগো মারাদোনাকে অভিনব শ্রদ্ধার্ঘ্য জানিয়েছিলেন লিওনেল মেসি। বার্সিলোনার জার্সি খুলে ভেতরে নিউ ওয়েলস ওল্ড বয়েজ দলের জার্সি দেখিয়ে দিয়েগোর প্রতি সন্মান জানান মেসি। আসলে আর্জেন্টিনায় এই ক্লাবের হয়েই প্রথম ফুটবল শুরু মেসির। ১৯৯৩ সালে এই ক্লাবের জার্সি গায়ে খেলেছিলেন মারাদোনা। ন্যু ক্যাম্পে ভিআইপি বক্সে কাঁচের বাক্সে রাখা ছিল মারাদোনার বার্সেলোনার হয়ে খেলা জার্সি। তার সামনে গিয়ে হাঁটু ভাঁজ করে বসে দুই হাত উপরে তুলে ফুটবল রাজপুত্রকে স্মরণ করতে দেখা যায় লিওকে। রেফারি সঙ্গে সঙ্গে তাকে হলুদ কার্ড দেখান। বার্সেলোনার পক্ষ থেকে জানানো হয় এটা সম্মান প্রদর্শন করা, অনুরোধ করা হয় হলুদ কার্ড ফিরিয়ে নেওয়ার। কিন্তু স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের কম্পিটিশন কমিটি জানিয়ে দেয় যদি মেসি জার্সি না খুলতেন এবং রেফারির খাতায় তার নাম না উঠত তাহলে সিদ্ধান্ত নিয়ে পুনর্বিবেচনা করা যেত। তবে আর সেই সম্ভাবনা নেই। ফাইন দিতেই হবে মেসিকে, তার সঙ্গে বার্সেলোনাকেও। ভারতীয় মুদ্রায় মেসির ফাইনের পরিমাণ প্রায় ৫৪ হাজার টাকা।

ইতিমধ্যেই স্প্যানিশ ফুটবল কর্তাদের এইরূপ সিদ্ধান্তের জন্য গোটা বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় বইছে। তবে কি মেসি রাজপুত্রকে সম্মান দেখিয়ে কোনো ভুল করেছেন? এখন এটাই সবচেয়ে বড় প্রশ্ন সমগ্র ফুটবলপ্রেমীদের কাছে। উত্তরের অপেক্ষায় ফুটবল জগৎ।

- Sponsored -

- Sponsored -

ব্যুরো নিউজঃ সম্প্রতি ৬০ বছর বয়সেই পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে বিদায় নিয়েছেন ফুটবলের ঈশ্বর ডিয়েগো আরম্যান্ডো মারাদোনা। তাঁর শোকে এখনও কাতর এশিয়া থেকে ইউরোপ, আফ্রিকা থেকে অস্ট্রেলিয়া। এখন দক্ষিণ গোলার্ধের জাদুকর মারাদোনা স্মৃতির খাতায়। তাঁর জন্য চোখের জল পড়েনি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কঠিন। এখন বিশ্বের যেখানেই ফুটবল ম্যাচ হয়েছে, সেখানেই আগে এক মিনিট নীরবতা পালন হয়েছে ফুটবলের সেরা সম্রাটের জন্য। তবে স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের একটি ঘটনার জন্য তাদের যথেষ্ট সমালোচনার মুখে পড়তে হয়।

গত লা লিগার ম্যাচে ওসাসুনার বিরুদ্ধে গোলটা করেই সদ্য প্রয়াত দিয়েগো মারাদোনাকে অভিনব শ্রদ্ধার্ঘ্য জানিয়েছিলেন লিওনেল মেসি। বার্সিলোনার জার্সি খুলে ভেতরে নিউ ওয়েলস ওল্ড বয়েজ দলের জার্সি দেখিয়ে দিয়েগোর প্রতি সন্মান জানান মেসি। আসলে আর্জেন্টিনায় এই ক্লাবের হয়েই প্রথম ফুটবল শুরু মেসির। ১৯৯৩ সালে এই ক্লাবের জার্সি গায়ে খেলেছিলেন মারাদোনা। ন্যু ক্যাম্পে ভিআইপি বক্সে কাঁচের বাক্সে রাখা ছিল মারাদোনার বার্সেলোনার হয়ে খেলা জার্সি। তার সামনে গিয়ে হাঁটু ভাঁজ করে বসে দুই হাত উপরে তুলে ফুটবল রাজপুত্রকে স্মরণ করতে দেখা যায় লিওকে। রেফারি সঙ্গে সঙ্গে তাকে হলুদ কার্ড দেখান। বার্সেলোনার পক্ষ থেকে জানানো হয় এটা সম্মান প্রদর্শন করা, অনুরোধ করা হয় হলুদ কার্ড ফিরিয়ে নেওয়ার। কিন্তু স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের কম্পিটিশন কমিটি জানিয়ে দেয় যদি মেসি জার্সি না খুলতেন এবং রেফারির খাতায় তার নাম না উঠত তাহলে সিদ্ধান্ত নিয়ে পুনর্বিবেচনা করা যেত। তবে আর সেই সম্ভাবনা নেই। ফাইন দিতেই হবে মেসিকে, তার সঙ্গে বার্সেলোনাকেও। ভারতীয় মুদ্রায় মেসির ফাইনের পরিমাণ প্রায় ৫৪ হাজার টাকা।

ইতিমধ্যেই স্প্যানিশ ফুটবল কর্তাদের এইরূপ সিদ্ধান্তের জন্য গোটা বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় বইছে। তবে কি মেসি রাজপুত্রকে সম্মান দেখিয়ে কোনো ভুল করেছেন? এখন এটাই সবচেয়ে বড় প্রশ্ন সমগ্র ফুটবলপ্রেমীদের কাছে। উত্তরের অপেক্ষায় ফুটবল জগৎ।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored