Indian Prime Time
True News only ....

কাশ্মীরে প্রবল বর্ষণে মৃত ৭ জন ও নিখোঁজ প্রায় ৪০ জন

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ কাশ্মীরঃ আজ ভোরবেলা থেকে জম্মু-কাশ্মীরের প্রত্যন্ত গ্রাম কিস্তওয়ারের ডাচান তেহসিল গ্রামে মেঘভাঙা বৃষ্টির জেরে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরী হয়েছে। রিয়াসি জেলার ছেনাব নদীর জলস্তর প্রবলভাবে ফুলে ফেঁপে উঠেছে। ইতিমধ্যেই সালাল জলাধারের গেট খুলে দেওয়া হয়েছে। এই অবধি প্রায় ৭ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া ঘুমের মধ্যেই প্রায় ৩০ থেকে ৪০ জন গ্রামবাসী ভেসে গিয়েছেন।

সূত্রের খবরের ভিত্তিতে জানা গেছে, গুরুতর আহত অবস্থায় পাঁচ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। মোট ১৭ জন আহত হয়েছেন। ১৯ টি বাড়ি ও ২১ টি গোয়ালঘর একেবারে ভেসে গিয়েছে। মুষলধারে বৃষ্টির জন্য আপাতত উদ্ধারকাজ বন্ধ রাখা হয়েছে।

কিস্তওয়ারের জেলাশাসক অশোক কুমার শর্মা জানান, “ধ্বংসস্তূপ থেকে একাধিক দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ৮ থেকে ৯ টি বাড়ি একেবারে ভেঙে গিয়েছে। ভারতীয় সেনা এবং পুলিশ এলাকায় উদ্ধারকার্যে হাত লাগিয়েছে”।

- Sponsored -

- Sponsored -

দিল্লির মৌসম ভবন সূত্রে খবর যে, এখনই জম্মু-কাশ্মীরের এই দুর্যোগ কাটছে না। বিশেষ সতর্কতার কথা বলা হয়েছে যে রাজৌরি ও রিয়াসি সংলগ্ন বেশ কিছু এলাকায় অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। বন্যা এবং ধসের আশঙ্কাও রয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং ভারতীয় বায়ুসেনাকে কিস্তওয়ারে উদ্ধারকার্যে হাত লাগাতে অনুরোধ করেছেন। স্থানীয় বাসিন্দারাও উদ্ধারকার্যে চালিয়ে যাচ্ছেন।

Narendra Modi

          @narendramodi
Central Government is closely monitoring the situation in the wake of the cloudbursts in Kishtwar and Kargil. All possible assistance is being made available in the affected areas. I pray for everyone’s safety and well-being.

এই ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও ট্যুইট করে জানিয়েছেন, “কেন্দ্রীয় সরকার কিস্তওয়ার ও কার্গিলের মেঘভাঙা বৃষ্টির ঘটনায় নজর রেখেছে। বিপর্যস্ত এলাকায় সাহায্যের কাজ শুরু করা হয়েছে। সবার সুরক্ষা এবং নিরাপত্তা আশা করছি”।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored