Indian Prime Time
True News only ....

বাম থেকে গিয়ে রামের টিকিট পেয়ে প্রচার শুরু শংকরের

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ শিলিগুড়িঃ একদিনেই বাম থেকে রাম। দুদিন বাদেই মিলে গেল বিধানসভার টিকিট। আর দীর্ঘ ৩০ বছরের বেশী সময় ধরে বাম রাজনীতি করে আসা ভগবানের কাছে মাথা নীচু না করা সেই ব্যক্তি এবার পুজো দিলেন কালী মায়ের মন্দিরে। হাতে লাল পতাকার জায়গায় কপালে লাল টিকা। হ্যাঁ, আমরা শিলিগুড়ির বিজেপির প্রার্থী শংকর ঘোষের কথাই বলছি। ছাত্র রাজনীতি থেকেই বামপন্থায় বিশ্বাস করা শংকর ঘোষ এবার শিলিগুড়ির বিজেপির প্রার্থী।

এস.এফ.আই, ডি.ওয়াই.এফ.আই এর পর জেলা সিপিএমের কমিটির সদস্য ও শিলিগুড়ি মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের শংকর ঘোষ সিপিএম নেতৃত্বের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করে কয়েকদিন আগেই দল ছেড়েছেন। দল ছাড়ার পর থেকেই গুঞ্জন শুরু হয় শংকর কি বিজেপিতে যোগদান করবেন? যেমন কথা তেমন কাজ। দু’দিন বাদেই শংকর ঘোষ বিজেপিতে যোগদান করেন। আর বিজেপিতে যোগদান করার দুদিন বাদেই টিকিটও মিলে গেল। পুরোনো কর্মীদের টপকে একদম এক নম্বরে শংকর। বিষয়টি নিয়ে জলঘোলা শুরু হয়েছে কিন্তু বিষয়টি নিয়ে বিজেপি নেতৃত্ব এখনো প্রকাশ্যে মুখ খুলতে শুরু করেননি।

প্রার্থী ঘোষণার পর বিজেপি নেতৃত্ব শংকরকে সাথে নিয়ে প্রচারের কাজে বেরিয়ে পড়েছেন।শুক্রবার সকালে শিলিগুড়ির বিজেপি প্রার্থী শংকর ঘোষ ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের করুণাময়ী কালী মন্দিরে পূজার্চনা করলেন। সেখানে মায়ের কাছে আসন্ন বিধানসভা ভোটে যাতে জয়লাভ করতে পারেন তা নিয়ে প্রার্থনা করলেন।

- Sponsored -

- Sponsored -

শংকর ঘোষ সংবাদমাধ্যমের সাথে কথা বলতে গিয়ে বলেন, “সব দিকেই উন্নয়ন করতে হবে।শিলিগুড়িকে মেট্রোপলিটন টাউনে রূপান্তর করতে হবে। নালা নর্দমার কাজ থেকে শুরু করে শহরের উন্নতি সবকিছুতেই নজর দেওয়াটাই তার লক্ষ্য। বিজেপির পাহাড় থেকে সমতল দু’শোর বেশি আসন টার্গেট। আর উত্তরবঙ্গে চল্লিশটির বেশি আসনে জয়লাভ করাটাই এখন বিজেপির কাছে সবচেয়ে বড়ো চ্যালেঞ্জ”।

শঙ্কর ঘোষ শিলিগুড়িতে তারই রাজনৈতিক গুরুদেব অশোক ভট্টাচার্যের বিপক্ষে ভোটের লড়াইয়ে নেমেছেন। দীর্ঘ কয়েক বছর যাবৎ একসাথে লড়াই করা দু’জন বামপন্থী নেতার মধ্যে একজন এবার বিজেপির প্রার্থী এবং অপরজন সেই বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে শিলিগুড়ির ভোটের ময়দানে।

‘শিলিগুড়িতে জয়লাভ ও রাজ্যে ক্ষমতায় আসবেন’ শংকর ঘোষের এই মন্তব্য প্রসঙ্গে অশোকবাবু একটি শব্দও করতে নারাজ। তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অধিকাংশ সময় ধুর ধুর ধুর শব্দটি ব্যবহার করেছেন। অশোকবাবু বলেছেন “এই বিজেপি আদৌ ক্ষমতায় আসবে না। আর বাম থেকে রামে যাওয়া শঙ্করবাবুকেও শিলিগুড়িতে জিততে হবে না”।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored