Indian Prime Time
True News only ....

লকডাউনের বিধি অমান্য করেই চলছে পর পর গুলির সংগ্রাম

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ মধ্যপ্রদেশঃ কখনো কখনো করোনা ভীতি উপেক্ষা চলে রাজনৈতিক সংঘর্ষ তো আবার কখনো কখনো অপ্রীতিকর ঘটনাকে ঘিরে চলে গোষ্ঠী সংঘর্ষ।

এবার মধ্যপ্রদেশের মোরেনাতে দেখা গেল আরো এক নজিরবিহীন ঘটনা। যেখানে মারণ ভাইরাস করোনার জেরে ১৫ ই মে পর্যন্ত কঠোর জনতা কারফিউ চলছে। এমত পরিস্থিতিতে সেই লকডাউনের সমস্ত নিয়ম-নীতিকে উপেক্ষা করে দুই বাইক বাহিনীর মধ্যে প্রকাশ্যে দীর্ঘক্ষনের গুলির লড়াই চলে।

সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা গেছে, কোতোয়ালি থানার অন্তর্গত বাঁকান্দি রোড এলাকায় একজন মহিলা হাসপাতালের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন। তখন অন্য একজন মহিলাকে কুরুচিকর মন্তব্য করায় একদল আরেক দলের একজন সদস্যকে মারধর করে। আর মারধরকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে গুলির লড়াই চলে। ওই সময় রাস্তায় থাকা ওই মহিলার মাথায় গুলির আঘাত লাগে। এছাড়া সেই সময় ১০০ টির বেশী গুলি চলে বলে জানা গিয়েছে। 

- Sponsored -

- Sponsored -

স্থানীয়রা গুলির আওয়াজ শুনতে পেয়েই পুলিশের কাছে খবর দিলে বিশাল পুলিশবাহিনী এসে ৪ জনকে আটক করে। কিন্তু বাকিরা পালিয়ে যায়। পরে অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদের মধ্যে দিয়ে আরো ৫ জনকে আটক করা হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ডাঃ রাইসিং নারওয়ারিয়া জানান, “আমরা তাদের মধ্যে কয়েকজনকে আটক করেছি। এছাড়া যারা এই ঘটনায় জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়”।

আহত মহিলার স্বামী প্রদীপ শর্মা বলেছেন যে, “আমার স্ত্রী চিকিত্‍সকের কাছে যাচ্ছিলেন। এমন সময় আচমকাই তিনি দেখতে পান পিছন দিয়ে বিশাল বাইক বাহিনী হাতে বন্দুক-রাইফেল নিয়ে এগিয়ে আসছে। তখন রাস্তা থেকে নেমে নিরাপত্তার জন্য প্রাণ রক্ষা করতে নিরাপদ জায়গায় যেতে গিয়েই আমার স্ত্রী আহত হন। তাছাড়া সেখানে যেভাবে গুলি চালানো হয়েছে তার প্রমাণ রাস্তার উপর দাঁড়িয়ে থাকা বাস ও আশেপাশের বাড়ির গায়ে গুলির ক্ষত দেখলেই অনুমান করা যায়”।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored