Indian Prime Time
True News only ....

অবশেষে চাকরী খোয়াতে হলো পরেশ কন্যাকে

- sponsored -

- sponsored -

চয়ন রায়ঃ কলকাতাঃ কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী শিক্ষা প্রতি মন্ত্রী পরেশ অধিকারীর কন্যা অঙ্কিতা অধিকারীকে চাকরী থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশ, অঙ্কিতাকে এ যাবৎ দেওয়া সমস্ত বেতনও দু’টি কিস্তির মাধ্যমে হাইকোর্টের রেজিস্টারকে ফেরত দিতে হবে।

ববিতা সরকার নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী অঙ্কিতার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিল যে, “বাবার প্রভাব খাটিয়ে বেআইনী পন্থায় শিক্ষকতার চাকরী পেয়েছিল।

- Sponsored -

- Sponsored -

ফলে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় অঙ্কিতাকে চাকরী থেকে বরখাস্ত করার নির্দেশ দিয়ে জানিয়েছেন, “সে নিজেকে শিক্ষক হিসাবেও পরিচয় দিতে পারবেন না। এমনকি ওই বিদ্যালয়ে ঢুকতেই পারবেন না। প্রায় ৪১ মাসের বেতন দুই কিস্তিতে ফেরত দিতে হবে। প্রথম কিস্তির তারিখ ৭ ই জুন। আর দ্বিতীয় কিস্তির তারিখ ৭ ই জুলাই।”

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে অঙ্কিতার এসএসসি পরীক্ষার দ্বিতীয় মেধাতালিকায় নাম ওঠে। কিন্তু প্রথম মেধাতালিকায় প্রথম ২০ তে নাম না থাকা অঙ্কিতাকে বেআইনী ভাবে দ্বিতীয় তালিকার একেবারে প্রথমে নিয়ে আসা হয়।

ওই মেধাতালিকার ২০ নম্বরে যে এসএসসি পরীক্ষার্থীর নাম ছিল সেই ববিতার থেকেও সে ১৬ নম্বর কম পেয়ে প্রাপ্ত নম্বর ছিল ৬১। আর যেখানে ২০ নম্বরে থাকা পরীক্ষার্থী ববিতার প্রাপ্ত নম্বর ছিল ৭৭। এর ফলে অঙ্কিতার নাম মেধা তালিকায় ঢোকানোয় ববিতা চাকরীর সুযোগ হারান।

সম্প্রতি এসএসসির সদ্য ইস্তফা দেওয়া চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ মজুমদার এই ঘটনাটির কথা আদালতকে জানিয়েছিলেন। এরপরই হাইকোর্ট অঙ্কিতার বাবা অর্থাৎ রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশচন্দ্র অধিকারীকে সিবিআইয়ের সামনে হাজির হতে বলে।

সেই অনুযায়ী গতকাল রাতেরবেলা পরেশচন্দ্র অধিকারী কলকাতায় এসে নিজাম প্যালেসে সিবিআইয়ের দপ্তরে হাজির হয়েছিলেন। এদিন সকালবেলা তাঁকে ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

 

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored