Indian Prime Time
True News only ....

পড়াশোনায় অমনযোগীতার জেরে বাবার হাতে পুড়তে হলো ছেলেকে

- Sponsored -

- Sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ হায়দ্রাবাদঃ সকলেই মেধাবী হতে পারে না। আর সেটা কোনো অপরাধের বিষয় নয়। কিন্তু এবার পড়াশোনায় মেধাবী না হতে পারার মাশুল দিতে হলো এক নাবালককে। তাই পড়াশোনায় ভালো না হওয়ার অপরাধে নিজের ছেলেকে গায়ে আগুন ধরিয়ে দিলেন পাষণ্ড বাবা। অস্বাভাবিক ও চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি হায়দ্রাবাদে ঘটেছে।

সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা যায়, অগ্নিদগ্ধ কিশোরটি ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র। ঘটনার দিন রাতেরবেলা ছেলেটিকে তার বাবা বাড়ির পাশের একটি দোকানে বিড়ি কিনতে পাঠান। তবে ওই কিশোর সেখান থেকে বাড়িতে ফিরতে সামান্য দে্রী করে ফেলেছিল। তাই দেরী করার কারণ জানতে চেয়ে কিশোরের বাবা ছেলেটিকে বেধড়ক প্রহার করতে শুরু করে। ঠিক সেইসময় ওই কিশোরের মা ছেলেকে বাবার মারের হাত থেকে বাঁচানোর জন্য ছুটে আসলে ছেলের খারাপ পড়াশোনার জন্য তিনি তার স্ত্রীকেও দায়ী করেন। এরপর কিশোরের বাবা রাগের বশে ছেলের গায়ে তেলের ক্যান তুলে ঢেলে দেন। তারপর তিনি বিড়ি ধরিয়ে জ্বলন্ত দেশলাইয়ের কাঠিটি ছেলের গায়ে ছুঁড়ে দিলে আগুন ধরে যায়।

- Sponsored -

- Sponsored -

যার জেরে কিশোরটির শরীরের ৬০ শতাংশ অংশ আগুনে পুড়ে গিয়েছে। তৎক্ষণাৎ কিশোরটি অসহ্য যন্ত্রণার সাথে চিত্‍কার করতে করতে আগুন গায়ে নিয়েই পালানো চেষ্টা করে। এরপর বেগতিক ভাবে বাড়ির বাইরে থাকা একটি গর্তে পড়ে যায়। বর্তমানে ওই কিশোর অত্যন্ত আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিত্‍সাধীন রয়েছে।

এই ঘটনায় স্তম্ভিত গোটা এলাকা। নিজের বাবা যে এই ধরণের নির্মম নিকৃষ্ট জঘন্য অপরাধ করতে পারে তা কল্পনার অতীত। এই ঘটনা সমগ্র সমাজের কাছে একটি অত্যন্ত নিন্দনীয় এবং ধিক্কারজনক ঘটনা।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored