Indian Prime Time
True News only ....

বিজেপির নির্বাচনী কার্যালয় পোড়ানোর জেরে বিক্ষোভে ফেটে পড়লো বিজেপি কর্মীরা

- Sponsored -

- Sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ উত্তর দিনাজপুরঃ উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ বিধানসভার কেন্দ্রের পিরোজপুর গ্রামে বিজেপির নির্বাচনী কার্যালয় পুড়িয়ে দেওয়ার প্রতিবাদকে ঘিরে আজ বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা এলাকায় টায়ার জ্বালিয়ে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পিরোজপুর গ্রাম জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য শুরু হলো। এই ঘটনায় অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকেই।

বিজেপির অভিযোগ, “গত কয়েক দিন ধরে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাদের কর্মীদের বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিচ্ছে। আর গতকাল রাতে সব সীমা অতিক্রম করে তারা দলের কার্যালয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এখন তৃণমূল জনসমর্থন হারিয়ে গেছে জেনেই এলাকায় সন্ত্রাসজনক কার্যকলাপ চালাচ্ছে”।

- Sponsored -

- Sponsored -

আজ সকালে বিজেপির কর্মী-সমর্থকেরা দলের নির্বাচনী কার্যালয় ভস্মীভূত অবস্থায় দেখে গ্রামের রাস্তায় একত্র হয়ে টায়ার জ্বালিয়ে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। বিক্ষোভের খবর পেয়ে কর্ণজোড়া ফাঁড়ির পুলিশ সহ বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যাণী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়।

কৃষ্ণ কল্যাণী জানান, ”তৃণমূলের গুন্ডারা রাতে পার্টি অফিস জ্বালিয়ে দিয়েছে। তাদের পায়ের তলায় মাটি সরে গিয়েছে। ফলে এখন হিংসাই তাদের একমাত্র অস্ত্র। যদি সন্ত্রাস করে ও পার্টি অফিস জ্বালিয়ে ভোট লুঠ করা যায়। এছাড়া পুলিশ তৃণমূলের ক্যাডার হয়ে কাজ করছে। এই রকম চলতে থাকলে জনতা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠবে”।

কিন্তু পুরো ঘটনাটিকে অস্বীকার করে কমলাবাড়ি ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান তথা তৃণমূল নেতা প্রশান্ত দাস জানিয়েছেন, ”এটা বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দলের ফলে হয়েছে। এর সঙ্গে তৃণমূল কোনো ভাবে জড়িত নয়। বিজেপির জেলা সভাপতি বিশ্বজিত্‍ লাহিড়ীকে পরিবর্তন করায় বিভিন্ন জায়গায় এই অশান্তকর পরিস্থিতি দেখা যাচ্ছে”।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored