Indian Prime Time
True News only ....

তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিজেপির মহিলা কর্মী ও তার মেয়েকে মারধরের অভিযোগ উঠল

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

শিবশঙ্কর চট্টোপাধ্যায়ঃ দক্ষিণ দিনাজপুরঃ দক্ষিণ দিনাজপুরে এখনো ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত। এবার জেলার গঙ্গারামপুরে বিজেপির মহিলা কর্মী ও তার মেয়েকে মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

গঙ্গারামপুর পৌরসভার বোরডাঙ্গি এলাকায় বিজেপির মহিলা টাউন সম্পাদক চন্দনা পাল রাজবংশী এবং তার মেয়ে কেয়া রাজবংশীকে মারধরের তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে বিজেপি।

- Sponsored -

- Sponsored -

বিজেপির অভিযোগ, “এলাকার তৃণমূলের প্রাক্তন কাউন্সিলর দেবযানী দত্ত দে সরকারের নেতৃত্বে চন্দনা পাল রাজবংশী ও কেয়া রাজবংশীকে মারধর করা হয়। সাইকেল প্রতিযোগীতায় রাজ্য স্তরের খেলোয়াড় কেয়া রাজবংশী বর্তমানে গঙ্গারামপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে”।

বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার জানান, “ভোট-পরবর্তী হিংসা এখনো অব্যাহত রয়েছে। গতকাল তৃণমূলের বিদায়ী কাউন্সিলারের নেতৃত্বে গঙ্গারামপুরে বিজেপির মহিলা টাউন সম্পাদক চন্দনা পাল রাজবংশী এবং তার মেয়ে কেয়া রাজবংশীকে মারধর করা হয়। জঘন্য কাজ চলছে। দল-মত নির্বিশেষে সকল মানুষের গর্জে ওঠা প্রয়োজন”।

অপরদিকে তৃণমূল মারধরের ঘটনায় জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছে। তৃণমূলের জেলা কোঅর্ডিনেটর সুভাষ চাকী জানিয়েছেন, “গঙ্গারামপু্রের ঘটনা দুটি পরিবারের মধ্যে পারিবারিক বিবাদ। ভোটে হারার পর মানুষের মন পেতে বিজেপি যে কোনো ঘটনায় রাজনীতির রং লাগাতে শুরু করেছে। এই ঘটনায় কোনো রাজনীতি নেই। আর এই ঘটনায় তৃণমূল জড়িতও নয়”।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored