Indian Prime Time
True News only ....

পাত্রসায়রে আক্রান্ত এক বিজেপি কর্মী

- sponsored -

- sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ বাঁকুড়াঃ বাঁকুড়ার পাত্রসায়র থানা এলাকার বালসিতে বুদ্ধদেব পাল নামের এক বিজেপি কর্মীর আক্রান্ত হওয়াকে কেন্দ্র করে এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্য ছড়ায়। আক্রান্ত বুদ্ধদেব পাল বালসি গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের প্রাক্তন প্রধান ছিলেন। তবে জানা যায় বর্তমানে তিনি বিজেপির যুব মোর্চার জেলা কমিটির সদস্য।

আক্রান্ত বুদ্ধদেববাবু জানান, “গতকাল রাতে যখন তিনি বালসি মোড়ের একটি চা দোকানে বসেছিলেন ঠিক তখনই এক সময়ের সিপিএমের কর্মী হিসেবে পরিচিত ও বর্তমানে বিজেপিতে নাম লেখানো কয়েকজন দুষ্কৃতী তাকে রড, টাঙ্গি এবং লাঠি হাতে আক্রমণ করে। যার আঘাতে তিনি গুরুতর জখম হন। তিনি বলেন, ”আগে তৃণমূল করলেও ২০১৯ এর লোকসভা ভোটের সময় বিজেপিতে যোগ দেই। এতদিন ধরে এখানে আমি বিজেপি করছি। নতুন যারা দলে যোগ দিয়েছে তারাই আমার উপর হামলা চালিয়েছে”।

এমত অবস্থায়’ রাতেই আক্রান্ত ওই বিজেপি কর্মীকে চিকিত্‍সার জন্য বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। বর্তমানে সেখানেই তিনি চিকিত্‍সাধীন র‍্য়েছেন।

- Sponsored -

- Sponsored -

এই ঘটনায় তৃণমূলের নেতারা জানান, পাত্রসায়রের ঘটনাই প্রমাণ করছে বিজেপির গোষ্ঠীকোন্দল কতটা প্রবল। তৃণমূলের বাঁকুড়া জেলা সভাপতি শ্যামল সাঁতরা বলেন, ”বিজেপির এখন ঘরে ঘরে গোষ্ঠী। বিজেপির অত্যাচারে এলাকার মানুষ একেবারে ভীত সন্ত্রস্ত। সাধারণ মানুষ আদি আর নব্য বিজেপির এই অন্তর্দ্বন্দ্ব বুঝতে পারছেন। ভোটে এর প্রতিফলন নিশ্চয় হবেই”।

অপরদিকে বিজেপি এই পুরো ঘটনাকে অস্বীকার করেছে। বিজেপির রাঢ়বঙ্গ জোন কমিটির কনভেনর পার্থ কুণ্ডু বলেন, ”এখন সবাই নিজেকে বিজেপি বলে দাবী করছে। কিন্তু আমাদের দলের কোনো কার্যকর্তার আক্রান্ত হওয়ার খবর আমাদের কাছে নেই। আর আক্রান্ত ব্যক্তি সত্যিই দলের কিনা তা খোঁজ নিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে ঘটনাটিকে বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দল বলে রটিয়ে তৃণমূল অপপ্রচার করছে”।

পুলিশ এই গোটা বিষয়টির তদন্ত করে দেখছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored