Indian Prime Time
True News only ....

ফেসবুক লাইভ করতে করতে নিমেষে শেষ হয়ে গেল ৪ টি প্রাণ

- Sponsored -

- Sponsored -

ADVERTISMENT

ADVERTISMENT

নিউজ ডেস্কঃ উত্তরপ্রদেশঃ উত্তরপ্রদেশের সুলতানপুরে পূর্বাঞ্চল এক্সপ্রেসওয়েতে হালিয়পুর থানার কাছে ২৩০ কিলোমিটার বেগে ছুটতে থাকা একটি গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টো দিক থেকে লখনউ থেকে বিহারের দিকে যাওয়া একটি ট্রাকের সাথে মুখোমুখি ধাক্কা লাগতেই ছোটো গাড়িটি একেবারে দুমড়েমুচড়ে যায়।

তাতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় গাড়িতে থাকা চার জনের। সূত্রের ভিত্তিতে জানা যায়, গাড়ির স্পিডোমিটারে গতি ১০০ কিলোমিটার ছিল। কিন্তু ফেসবুক লাইভ করতে করতে গাড়ির সওয়ারিদের এক জন চালককে বলতে শোনা গেল, ‘‘আরও স্পিড বাড়া। ৩০০ কিলোমিটারে নিয়ে চল। আজ চার জনই মরব বলে অট্টহাসি শুরু হলো।’’

তখন গাড়ি এক্সপ্রেসওয়ে দিয়ে প্রায় হাওয়ায় উড়ছিল। রাস্তার আশপাশ সেই গতিতে ঝাপসা হয়ে গিয়েছিল। গাড়ির গতি তখন প্রায় ২০০ ছুঁইছুঁই করছে। এক জন সওয়ারিকে বলতে শোনা গেল, ‘‘এখান থেকেই স্পিড তোল….তোল স্পিড।’’ আবার এক জন সওয়ারিকে পরামর্শ দিতে শোনা গেল, ‘‘সিটবেল্ট বেঁধে নাও।’’

- Sponsored -

- Sponsored -

এরপর গাড়ি ২৩০ কিলোমিটার গতি ছুঁতেই ভিডিওটি শেষ হয়ে যায়। তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে যে, মৃতেরা হলো উত্তরাখণ্ডের বাসিন্দা ৩৫ বছর বয়সী আনন্দ প্রকাশ, অখিলেশ সিংহ ও ৩৭ বছর বয়সী ভোলা কুশওয়া এবং দীপক কুমার। আর দীপক ভোলাকে ৩০০ কিলোমিটার বেগে গাড়ি চালানোর জন্য জোরাজুরি করেছিলেন।

গাড়িটি বিহারের রোহতাস থেকে দিল্লির দিকে যাচ্ছিল। আর ধাক্কার অভিঘাত এতটাই বেশী ছিল যে, গাড়িটির মধ্যে থাকা সকলের দেহ টুকরো টুকরো হয়ে গিয়েছিল।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored