Indian Prime Time
True News only ....

কোভ্যাক্সিনের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পরেই মৃত ১

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored -

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ মুম্বইঃ ভারতবর্ষে দ্বিতীয় দফার করোনাভাইরাসের টীকাকরণ শুরু হয়েছে। চলতি বছর ১ লা মার্চ থেকে নাম নথিভুক্ত করে ৬০ বছরের উপরে প্রবীণ ও ৪৫ বছরের উপরে যাদের কোমর্বিডিটি রয়েছে তাদের ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে গেছে।

কিন্তু মহারাষ্ট্রের মুম্বইয়ের ভিওয়ান্ডিতে ৪৫ বছর বয়সী সুখদেব কিরদাত নামের একজন ব্যক্তি করোনা টীকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পর গতকাল মারা গিয়েছেন। যদিও মৃত্যুর কারণ এখনো সঠিকভাবে জানা যায়নি।

- Sponsored -

- Sponsored -

সূত্রের খবরের ভিত্তিতে জানা যায়, ওই ব্যক্তি একজন চক্ষু বিশেষজ্ঞের গাড়িরচালক ছিলেন। তিনি স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে গত ২৮ শে জানুয়ারী প্রথম করোনা টিকা নিয়েছিলেন। এরপর গতকাল করোনার ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজটি নেওয়ার ১৫ মিনিট পরেই অজ্ঞান হয়ে যান। এর কিছুক্ষণ পরেই তাকে চিকিত্‍সকেরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে জানানো হয় ময়নাতদন্তের পরই তার মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।

চিকিৎসক কে আর কারাত জানান, “এক মাস আগে তিনি তার প্রথম করোনার টীকাকরণ করেছিলেন। তখন তার কোনো সমস্যা হয়নি। টীকা দেওয়ার আগে তার সম্পূর্ণ চেক-আপ করা হয়েছিল। তবে রিপোর্টে বহু বছর ধরে তার রক্তচাপের সমস্যার কথা ধরা পড়েছে। পা সামান্য ফুলে গিয়েছিল। যদিও দ্বিতীয়বার করোনার টীকাকরণের দিন রক্তচাপ এবং শরীরে অক্সিজেনের পরিমাণ একেবারেই স্বাভাবিক ছিল”।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন জানিয়েছেন যে, “পৃথিবীর সবচেয়ে বৃহৎ টীকাকরণ কর্মসূচী চালাচ্ছে ভারত। দেশে কোভ্যাক্সিন ও কোভিশিল্ড টীকাকরণ করা হচ্ছে। দিনের পর দিন এই কর্মসূচী আরো ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। কেন্দ্র চলতি বছরের আগস্ট মাসের মধ্যে ৩০ কোটি ভারতীয়কে টীকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে। এখন অবধি মোট ১ কোটি ৫৬ লাখ ২০ হাজার ৭৪৯ জনকে করোনা টীকা দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই প্রায় ২৯ লক্ষ মানুষ টীকা নেবেন বলে নাম নথিভুক্ত করিয়েছেন”।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored