Indian Prime Time
True News only ....

গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ ভাড়াটিয়াদের বিরুদ্ধে 

- Sponsored -

- Sponsored -

অমিত জানাঃ হাওড়াঃ হাওড়ার বকুলতলার মাকুয়া অঞ্চলে এক গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ অপর এক ভাড়াটিয়ার বিরুদ্ধে। যার জেরে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। মৃতার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত পরিবারের সদস্যদের আটক করল সাঁকরাইল থানার পুলিশ।

জানা গিয়েছে, মৃতার নাম দীপিকা সোনি (২৯)। মৃতার স্বামী সঞ্জয় সোনি হাওড়ার শিবপুরের একটা জুট মিলে কাজ করেন। তিনি ঘটনার সময় ঘরে ছিলেন না। একটি বাড়ির নীচের তলায় সপরিবারে বসবাস করত দীপিকার পরিবার। তারা সেখানে ভাড়া থাকেন। দ্বিতলের বাসিন্দারা অভিযুক্ত বাপ্পা নস্কর ও তার পরিবারের সদস্যরা।

মৃতার স্বামী সঞ্জয় সোনির অভিযোগ, এই ঘটনা আত্মহত্যা নয়। তার স্ত্রীকে মারা হয়েছে। তার অভিযোগের তীর দ্বিতলের ওই ভাড়াটিয়াদের উপর। বাপ্পা নস্করের মা সন্দেহ করত যে তার ছেলের সঙ্গে দীপিকার সম্পর্ক আছে।

- Sponsored -

- Sponsored -

কিন্তু সঞ্জয়বাবু জানান, “এরকম কোনো ব্যপার নয়। তার স্ত্রী এমনি নর্মাল কথা বলত। এই নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই ওদের সঙ্গে অশান্তি হত। এমনকি একবার বাপ্পার মা এবং মেয়ে ছুরি নিয়ে এসে তার স্ত্রীকে মেরে ফেলার হুমকিও দিয়েছিল। তাই সেই সন্দেহবশত বাপ্পা নস্কর ও তার পরিবারের সদস্যরা ঘরে ঢুকে দীপিকাকে শ্বাসরোধ করে খুন করেছে।

ঘরে ঢুকে দেখা যায় ঘরের মেঝেতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে তার রক্ত পড়ে আছে। তার মুখমন্ডলে আঘাতের চিহ্ন ছিল। অভিযুক্ত পরিবারের একটি গামছা সেই ঘরের ভেতর থেকে উদ্ধার করা হয়। পুলিশ সেটিকে বাজেয়াপ্ত করেছে”।   

গৃহবধূর দেহ প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় সাউথ হাওড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে। চিকিৎসকরা তাকে সেখানে মৃত বলে ঘোষণা করেন। সাঁকরাইল থানার পুলিশ মৃতার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে এই ঘটনার তদন্তে নেমে বাপ্পা নস্কর সহ তার পরিবারের চার জন সদস্যকে আটক করেছে।

- Sponsored -

- Sponsored -

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

- Sponsored -

- Sponsored -

- Sponsored

- Sponsored